বুট জুতা দাম কত ২০২৪

বুট জুতা দাম কত ২০২৪

বাংলাদেশের বাজারে খাঁটি চামড়ার বুট জুতার দাম ৫০০০ টাকার উপরে। তবে সাধারণত সিনথেটিক বুট সচরাচর সব দোকানগুলোতে পাওয়া যায়। যে বুটগুলোর মূল্য সাধারণত ৫০০ থেকে  কয়েক হাজার টাকা পর্যন্ত হয়। অর্থাৎ এসব বুট জুতা গুলো বাংলাদেশ খুব কম দামে পাওয়া যায়। ধারণা করা হয় ১২০০০ থেকে ১৫ হাজার পূর্বে থেকে সর্বপ্রথম বুট জুতা প্রচলন ছিল।

আজ পর্যন্ত এই বুট জুতার প্রচুর চাহিদা এবং ব্যবহার রয়েছে। বিভিন্ন ফ্যাশন ডিজাইনার সহ নামিদামি লোকেরা ব্যবহার করে থাকেন। এমনকি সামরিক,ইন্ডাস্ট্রিয়াল বা বিভিন্ন ঝুকিহীন কাজের রাস্তায় এই বুট জুতা সব থেকে বেশি ব্যবহৃত হয়। তাই কেউ যদি বুট জুতা কিনতে চায় তাহলে বুট জুতার দাম কত সঠিক জেনে রাখা উচিত। 

বুট জুতা দাম

বাংলাদেশের অবস্থিত বিভিন্ন কোম্পানি এই বুট জুতা গুলো তৈরি করে থাকে। বাটা কোম্পানির ভালো মানের জুতা বাজার করা থাকে। apex ইত্যাদি আরো কোম্পানি রয়েছে। তবে তাদের এই কোম্পানি থেকে বুট জুতা ক্রয় করতে চাইলে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা দিয়ে একটি বুট জুতা ক্রয় করতে পারবেন।

এছাড়াও তারা ভালো মানের এবং অধিক টেকসই ভোট জুতা তৈরি করে থাকেন। যেগুলোর মূল্য ৫ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। এ সকল বুট জুতার মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ক্যাটাগরি রয়েছে। যা কোম্পানি বেদে আলাদা এবং এর মূল্য তালিকা গুলো আলাদা।

বুট জুতার দাম বাংলাদেশ

স্পেনোর মানোলো ব্লাহনিকের তৈরি কুমিরের চামড়ার বুটের দাম ১৪ হাজার মার্কিন ডলার। এমনকি ২০১৪ সালের বেলজিয়ামের এএফ ভ্যান্ডেভোস্ট কোম্পানি সবথেকে দামি একটি বুট জুতা তৈরি করেন। আর এই এক জোড়া বুটের দাম হাকা হয়েছিল ৩১ লাখ মার্কিন ডলার।

তবে বাংলাদেশে এসব বুট জুতা কখনো তৈরি করা হয় না। তবে বাংলাদেশে আপনি বিভিন্ন ধরনের বুট জুতা পেয়ে যাবেন। যেগুলোর মূল্য একদমই কম। তবে খাঁটি চামড়ার বুট জুতা গুলোর দাম একটু বেশি হয়। এছাড়াও ডিজাইন এবং কোয়ালিটির উপর নির্ভর করে এ সকল বুট জুতার দাম।

ফুটবল বুট জুতা দাম

যারা ফুটবলপ্রেমী  তারা সর্বনিম্ন ৩০০ টাকা দিয়েও একটি ফুটবল বুট জুতা কিনতে পারবেন। তবে এর কোয়ালিটি হবে সর্বনিম্ন, অর্থাৎ বেশি দিন টেকসই হবে না। তবে এই বুট জুতা গুলো আপনি প্রায় ৫ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা দিয়েও কিনতে পারবেন।

তবে সাধারণত ৭০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে ভালো মানের ফুটবল বুট জুতা পাওয়া যায়। আর এই বাজেটের মধ্যে ফুটবল বুট জুতা কিনলে অনায়াসে ৫ থেকে ৬ মাস প্রতিদিন ব্যবহার করা যায়। যদি ১৫০০ টাকা থেকে ৩০০০ টাকার মধ্যে একটি ফুটবল বুট জুতা তাহলে এক বছরের জন্য অনায়াসে ফুটবল প্রতিনিয়ত খেলাধুল করতে পারবেন।

বুট জুতা দাম মেয়েদের

বিভিন্ন কোম্পানি দ্বারা ছেলে এবং মেয়েদের জন্য বুট জুতা তৈরি করা হয়।  ফুটবল খেলার জন্য বুট জুতা পাওয়া যায়। এবং প্রতিনিয়ত বিভিন্ন ফ্যাশন এবং পরিধান করার জন্য বুট জুতা পাওয়া যায়। তো সর্বনিম্ন ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা দিয়ে মেয়েদের জন্য একটি বুট জুতা কিনতে পারবেন। এবং সর্বোচ্চ বুট জুতা দাম হতে পারে ৫ থেকে ১৫ হাজার টাকা। তবে খুব কম সংখ্যক মেয়েদের বুট জুতা পড়তে দেখা যায়।

ছেলেদের বুট জুতার দাম

সবথেকে বেশি ছেলেরা এই বুট জুতা পরিধান করে থাকে। বিশেষ করে ফুটবল খেলার জন্য তারা এই বুট জুতা বেশি ক্রয় করে থাকে। এছাড়াও শীতের মৌসুমে বা প্রতিনিয়ত বুট জুতা পরিধান করার ক্ষেত্রে ছেলেরা বিভিন্ন ধরনের বুট জুতা ক্রয় করে থাকে।

যদি বিভিন্ন কাজের, এবং দুর্গম পথ চলার জন্য যদি বুট জুতা কিনতে চান তাহলে এক্ষেত্রে দাম হতে পারে ২ থেকে ৩ হাজার টাকা। যদি সাধারণ ক্ষেত্রে এই বুট জুতা পরতে চান তাহলে ৫০০ টাকা থেকে শুরু করে ১৫০০ টাকায় ভালো মানের বুট জুতা পেয়ে যাবেন।

বুট জুতার দাম পাইকারি

বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় আপনি পাইকারী জুতার দোকান দেখতে পারবেন। তবে এই পাইকারি দোকান গুলো বাংলাদেশের পণ্য দিয়ে ভরপুর। বাংলাদেশের বিভিন্ন ধরনের কোম্পানি রয়েছে। যারা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন কোয়ালিটি সম্পন্ন জুতা তৈরি করছেন। এবং জনগণের জন্য পাইকারি ভাবে বিক্রয় করছেন। সাধারণ দোকানগুলোতে যে বুট জুতার দাম ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা।

অর্থাৎ সে জুতা আপনি পাইকারি মূল্যে প্রায় ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা পেয়ে যাবেন। বিশেষ করে যারা পাইকারি ব্যবসা করতে চান তারা অবশ্যই ঢাকার এলিফেন্ট রোড বা গুলশান এলাকার বাটা, এপেক্স স্টোরগুলোতে অনুসন্ধান করতে পারেন। সর্বনিম্ন ৪০০ টাকা থেকে শুরু করে ৬০০ টাকায় ভালো মানের পাইকারি বুট জুতা ক্রয় করতে পারবেন। 

শেষ কথা

কোন ধরনের বুট জুতা বাংলাদেশে পাওয়া যায়, এবং এর দাম গুলো কেমন হতে পারে তার সংক্ষিপ্ত একটি ধারণা আপনাদেরকে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে এই আর্টিকেলের মাধ্যমে। তাই যারা এই জুতা পরিধান করতে চান তারা অবশ্যই বুট জুতা ক্রয় করার পূর্বে বুট জুতা দাম কত জেনে নিবেন। এই বুট জুতার দামগুলো প্রতিনিয়ত পরিবর্তন হতে পারে। পোস্টটি উপকৃত মনে হলে আপনার আশেপাশের ব্যক্তিদের কে শেয়ার করে জানিয়ে দিন। ধন্যবাদ

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url